জুকিনি বা স্কোয়াশ – দেশের বাজারে নতুন সবজি

জুকিনি বা স্কোয়াশ – দেশের বাজারে নতুন সবজি/ ফল

563 বার পড়া হয়েছে
  • শরীরে জলের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে
  • হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়
  • স্বাভাবিকের চেয়ে বড় হয়ে যাওয়া প্রস্টেটের আকার কমাতে সাহায্য করে
  • ব্লাড সুগার লেভেল ভারসাম্যে রাখতে সাহায্য করে

জুকিনি একটি হালকা এবং দেহ পরিষ্কারক সবজি বা ফল যা তরমুজ, শসা এবং অন্যান্য স্কোয়াশের সাথে সম্পর্কিত। এগুলিতে প্রচুর পরিমাণে জল, এবং কম ক্যালোরি থাকায় পুরুষের প্রোস্টেটের (prostate) অবস্থা উন্নত করতে পারে। অন্যান্য স্কোয়াশের (squash) তুলনায় এতে বেশি পরিমাণে ভিটামিন সি এবং পটাসিয়াম পাওয়া যায়। স্কোয়াশে বিটা-ক্যারোটিন, ফসফরাস এবং ফোলেটও রয়েছে।

জুকিনি বা স্কোয়াশ - দেশের বাজারে নতুন সবজি/ ফল
তিনটি ভিন্ন জাতের জুকিনি

১-কাপ রান্না করা জুকিনিতে পাওয়া যায়:

  • ক্যালোরি: ২৮
  • প্রোটিন: ১ গ্রাম
  • চর্বি: ০ গ্রাম
  • কার্বোহাইড্রেট: ৭ গ্রাম
  • চিনি: ৩ গ্রাম
  • ফাইবার: ৩ গ্রাম (যা মহিলাদের জন্য দৈনিক লক্ষ্যের ১০%!)
  • সোডিয়াম: ৫ মি.গ্রা

এটিকে এক কাপ রান্না করা স্প্যাগেটির সাথে তুলনা করুন, যাতে ২২০ ক্যালোরি, ৪৩ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট এবং মাত্র ২.৫ গ্রাম ফাইবার রয়েছে (যদিও আপনি পুরো গমের নুডলস বেছে নিলে আপনি আরও ফাইবার পাবেন)।

জুকিনি (Zucchini) কি জন্যে ভাল?

রেচন প্রক্রিয়ায়

জুকিনি বিভিন্ন উপায়ে স্বাস্থ্যকর হজমে সহায়তা করতে পারে। হজমের উন্নতিতে সাহায্য করার জন্য জল অপরিহার্য এবং এই সবজি জলে সমৃদ্ধ যার প্রতি ১০০ গ্রামে ৯৪.৮ গ্রাম জল রয়েছে। খাবারের জল মলকে নরম করতে সাহায্য করে দেহত্যাগ করা সহজ করে তোলে ফলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সম্ভাবনা হ্রাস পায়। এছাড়াও, জুচিনিতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ফাইবার রয়েছে। অদ্রবণীয় ফাইবার অন্ত্রকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে এবং ভালো হজমশক্তি বাড়ায়।

জুকিনির ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট (phytonutrients) অন্ত্রের নিয়মিততা বাড়িয়ে মলত্যাগে এবং প্রশ্রাবের নিয়মিততা নিশ্চিতে শরীরে জলের ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

প্রোস্টেট স্বাস্থ্য

ঘন ঘন এবং বেদনাদায়ক প্রস্রাব এবং মূত্রনালীর সংক্রমণের (urinary tract infection) ঝুঁকি বৃদ্ধি সহ বর্ধিত প্রস্টেটের (enlarged prostate) লক্ষণগুলি কমাতে সাহায্য করে।

হার্টের স্বাস্থ্য

জুকিনি বিভিন্ন উপায়ে হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে সাহায্য করতে পারে। আগেই বলা হয়েছে, জুচিনি এমন একটি ফল যা উচ্চ ফাইবার সমৃদ্ধ। বিজ্ঞানীরা বিভিন্ন গবেষণায় দেখিয়েছে যে উচ্চ ফাইবারযুক্ত খাবারগুলি একজন ব্যক্তির করোনারি হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করতে পারে। জুকিনিতে রয়েছে পানিতে দ্রবণীয় ফাইবার, পেকটিন। পেকটিন একজন ব্যক্তির রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল এবং লিপিডের মাত্রা কমিয়ে দিতে পারে, যা হৃদপিণ্ডের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে।

এই ফল/ সবজিতে ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে যা হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে প্রমাণিত। এছাড়াও ফোলেট রয়েছে, যা হোমোসিস্টাইনকে (homocysteine) ভেঙে দিয়ে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়।

বিপাকীয় ভারসাম্য

ফাইবার, ভিটামিন সি এবং বিটা-ক্যারোটিন রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ম্যাঙ্গানিজের পরিমাণ শরীরকে প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট বিপাক করতে, চর্বি হজম করতে, যৌন হরমোন উৎপাদনে অবদান রাখতে এবং রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করতে পারে।

কিভাবে জুকিনি থেকে সেরাটা পেতে পারি?

পুরোটা খেতে পারেন

অন্যান্য গ্রীষ্মকালীন স্কোয়াশের ন্যায় জুকিনির খোসা থেকে বীজ পর্যন্ত প্রায় সম্পূর্ণটাই খাওয়া যায়। শীতল, প্রশমক খাবার হিসাবে, এগুলি ক্লান্ত অ্যাড্রেনাল (tired adrenals) এবং ভগ্ন স্নায়ুর (frayed nerves) চিকিৎসার জন্য দরকারী।

এগুলি বেশিক্ষণ সংরক্ষণ করা যায় না, তাই তাজা থাকাকালীন তাড়াতাড়ি খান। স্কোয়াশ ফ্রেশ এবং দীর্ঘস্থায়ী রাখতে সেগুলি আস্ত এবং শুকনো একটি খোলা কাগজের ব্যাগে ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন।

খোসা ফেলে দিবেন না

জুকিনির খোসাতে লুটেইন এবং জেক্সানথিন (lutein and zeaxanthin) সহ গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি রয়েছে যা চোখের স্বাস্থ্য উন্নত করে।

কিভাবে জুকুনি খাওয়া যায়?

  • জুকিনি এমন একটি ফল বা সবজি যা কাঁচা এবং রান্না উভয়ই খাওয়া যায়।
  • পাতলা করে কেটে আপনার নিয়মিত সালাদে যোগ করতে পারেন।
  • পাতলা করে কাটা এবং গ্রিল করা জুকিনি জলপাই তেল এবং লেবুর রসের সাথে মিশিয়ে ভাল সাইড ডিশ তৈরি করতে পারেন।
  • জুকিনিকে ব্রেডক্রাম্ব করে তেলে ভাজুন যাতে একটি ক্রিস্পি সাইড ডিশ তৈরি হয়।
  • স্কোয়াশটিকে অর্ধেক লম্বা করে কেটে নিন, বীজ সরিয়ে দিন এবং শস্য, মসুর ডাল এবং/অথবা সবজি দিয়ে ভরাট করুন। ওভেনে ৪০০° ফারেনহাইট (২০০° সেলসিয়াস) বা নরম হওয়া পর্যন্ত বেক করুন।
  • এটিকে খেতে পারেন আরও বিভিন্ন উপায়ে যেভাবে আপনি খেয়ে থাকেন, কুমড়া, শসা, লাউ ইত্যাদি।

স্বাস্থ্য দর্পণ ডেস্কে একঝাক ফার্মাসিস্ট আপনাদের সামনে সঠিক ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরিবেশনে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও ডাক্তার, পুষ্টিবিদ ও সমাজবিজ্ঞানীদের কাছ থেকে নিয়মিত লেখা সংগ্রহ ও তাদের মাধ্যমে রিভিউ করা হচ্ছে। সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে আমরা এসেছি আপনার আস্থা অর্জনের অবিচল মনোবল নিয়ে।

একটি প্রত্যুত্তর করুন

Your email address will not be published.