Diabetes controlling explained in Bangla

ডায়াবেটিস কিভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখবেন?

430 বার পড়া হয়েছে

চিকিৎসা বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে ডায়াবেটিসের সম্পূর্ণ নিরাময় বা প্রতিকার নেই। তবে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যে কিছুটা হলেও স্বস্তির খবর এই যে, অনেক কার্যকরী পদ্ধতি ও জীবন যাপনে (life-style) নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলার মাধ্যমে ডায়াবেটিসের ক্ষতিকারক প্রভাবসমূহকে রোধ করা যায়। এ রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে সুস্থ, সুন্দর ও স্বাভাবিক জীবন যাপন করা সম্ভব ৷ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারলে একদিকে যেমন হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায় অন্যদিকে কিডনি ও লিভারের মত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গসমূহ বিকল হয়ে যাওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া ডায়াবেটিস রোগীদের মুখের ও দাঁতের নানা ধরনের অসুখ হতে পারে। দীর্ঘমেয়াদে চোখ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে, এমনকি পঙ্গুত্ব বরণের মত ঘটনাও ঘটতে পারে।

ডায়াবেটিস রোগীরা সুস্থ থাকবেন যেভাবে

নিন্মোক্ত উপায়ে ব্যাক্তি সচেতনতা, নিয়মতান্ত্রিক ও সুশৃঙ্খল জীবন যাপন (লাইফ-স্টাইল) এবং ডায়েট চার্ট (খাদ্য তালিকা) অনুসরণের মাধ্যমে একজন ডায়াবেটিস রোগী অনায়াসে সুস্থ ও দীর্ঘ জীবন লাভ করতে পারেন।

  • নিয়মিতভাবে শারীরিক পরিশ্রম (কায়িক শ্রম, হাঁটা বা ব্যায়াম ইত্যাদি) করতে হবে।
  • এক জায়গায় টানা বসে কাজ করা যাবেনা, মাঝে মধ্যে উঠে দাঁড়াতে বা হাটাহাটি করতে হবে।
  • রক্তে সুগার (গ্লুকোজ) লেভেল নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তচাপ (ব্লাড প্রেসার) ও লিপিড নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।
  • শারীরিক স্থূলতা (ওজন) কমাতে হবে।
  • ধূমপান বা এলকোহল গ্রহণের অভ্যাস থাকলে অবশ্যই তা পরিহার করতে হবে।

ডায়াবেটিস রোগীর খাদ্য

  • যেসব খাদ্য রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা দ্রুত বাড়ায়, যেমন- মিষ্টি জাতীয় খাবার, সাদা ভাত, সাদা রুটি, সিদ্ধ আলু ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। লাল আটার রুটি বা ঢেঁকিছাঁটা চালের ভাত এ ক্ষেত্রে বেশী উপযোগী।
  • যেসব খাদ্য রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা দেরিতে এবং ধীরে ধীরে বাড়ায়, যেমন- আঁশজাতীয় ফলমূল, শাকসবজি, প্রোটিন জাতীয় খাবার (মাছ-মাংস, ডিম, দুধ ইত্যাদি) খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে।
  • প্রতি বেলা সময়মতো খাবার খেতে হবে।
  • একসাথে খুব বেশী পরিমানে না খেয়ে অল্প অল্প করে খাওয়া উচিৎ।
  • অতিরিক্ত লবণ ও চর্বিজাতীয় খাবার এবং প্রক্রিয়াজাত (processed food) বা ফাস্ট ফুড ও কোল্ড ড্রিংকস বর্জন করা উচিৎ।

স্বাস্থ্য দর্পণ ডেস্কে একঝাক ফার্মাসিস্ট আপনাদের সামনে সঠিক ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরিবেশনে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও ডাক্তার, পুষ্টিবিদ ও সমাজবিজ্ঞানীদের কাছ থেকে নিয়মিত লেখা সংগ্রহ ও তাদের মাধ্যমে রিভিউ করা হচ্ছে। সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে আমরা এসেছি আপনার আস্থা অর্জনের অবিচল মনোবল নিয়ে।

1 Comment

  1. […] রক্ষা ও পরিচর্যার একটি মূল ধারণা। এটি ডায়াবেটিস সহ স্বাস্থ্য পরিষেবার সমস্ত […]

একটি প্রত্যুত্তর করুন

Your email address will not be published.